কোভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারীর প্রকোপে প্রায় স্থবির হয়ে পড়ে গোটা বিশ্ব। স্বাস্থ্যঝুকির কারণে একই সাথে বন্ধ হতে থাকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ। শিক্ষার্থীদের বাড়িতে রেখেই শিক্ষাব্যবস্থা চালু রাখতে গড়ে তোলা হয় বিভিন্ন রকম অনলাইন কাঠামো। এই প্রেক্ষাপটে একক ও অংশীদারী কার্যক্রমের মাধ্যমে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের শিক্ষা প্রকল্পগুলো একটি কর্মবহুল এবং সফল বছর কাটিয়েছে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দে। যদিও অনেক আগে থেকেই উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের শিক্ষা কার্যক্রম বিশ্বব্যাপী পরিচালিত হয়ে আসছিলো। তবে কোভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারীর দূর্যোগকালীন সময়ে তা আরও কার্যকর এবং বেগবান রূপ লাভ করেছে।

শুরুটা হয় ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের মার্চ মাসে ইউনেস্কোর তত্ত্বাবধানে বৈশ্বিক শিক্ষা জোটে অংশগ্রহণ করার মধ্য দিয়ে। উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন ছাড়াও এই জোটে বিশ্বের ১৪০টি শীর্ষ প্রতিষ্ঠান ও সংস্থা যোগদান করে। জোটের অংশ হিসেবে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন “এডু উইকি চ্যালেঞ্জ” পরিচালনা এবং দূর-শিক্ষণের জন্য পাঠ পরিকল্পনা ও পুস্তিকা প্রকাশ করে। এতে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের পাঠ্যসূচি অন্তর্ভূক্ত করা হয় যেন, ঘরে বসেই সুসংগঠিত পদ্ধতির মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা নির্দিষ্ট পাঠ্যক্রম শেষ করতে পারে। কিন্তু অনলাইন শ্রেণীকক্ষে ডিজিটাল শিক্ষা উপকরণের অভাব প্রকট হয়ে উঠে। এরই প্রেক্ষিতে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন দুইটি প্রকল্প হাতে নেয়। এদের একটি হলো “শ্রেণীকক্ষে উইকিপিডিয়া পাঠ”, এর মাধ্যমে শিক্ষকগণ পাঠ্যক্রম অনুযায়ী উইকিপিডিয়া থেকে প্রাসঙ্গিক নিবন্ধ শিক্ষার্থীদের পড়ানোর ব্যবস্থা করা হয়। পদ্ধতিগতভাবে এটা সম্পূর্ণ নতুন ধারণা হওয়ায় বিভিন্ন দেশে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। শুধুমাত্র মরক্কো, ফিলিপাইন এবং বলিভিয়াতেই এক হাজারের অধিক শিক্ষককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

দ্বিতীয় প্রকল্পটি হলো শিক্ষা উপকরণগুলোকে উইকিডাটার মাধ্যমে ডিজিটালকরণ বিষয়ক। উইকিডাটার স্বেচ্ছাসেবক, উইকিমিডিয়া সহযোগী কর্মীরা, উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন স্টাফ, ইউনেস্কো এবং অন্যান্য সহযোগী সংস্থার সদস্যগণ এতে অংশগ্রহণ করেন। উইকিমিডিয়া প্রকল্প হিসেবে উইকিডাটা সে বছর অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করে। এই উপলক্ষ্যে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের ২৬ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত “উইকিডাটা শিক্ষা সপ্তাহ” পালন করা হয়। এর মাধ্যমে শিক্ষাখাতে উইকিডাটার ব্যবহারের গুরুত্ব, সম্ভাবনা ইত্যাদি বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতে কাজ করা হয়।

২০২০ খ্রিষ্টাব্দের মে মাসের মধ্যে উইকিমিডিয়া এবং এডুকেশন গ্রিনগাউজের সমস্ত অনলাইন কোর্স উপকরণ তৈরি করা শেষ হয়। এই শিক্ষা উপকরণগুলো উইকিবিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ করা হয়েছে, এর মাধ্যমে যে-কেউ অনলাইনে পড়াশোনা করতে পারেন। এরপর জুন মাসে “এডু উইকি আউটরিচ কোল্যাবোরেটরস” নামে একটি সহযোগী প্রকল্প চালু করা হয়, যাতে সারা বিশ্ব থেকে উইকিমিডিয়ান এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিশেষজ্ঞগণ যোগদান করেন। অনলাইনে শিক্ষাখাতে অবদান রাখার জন্য ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের এপ্রিলে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড স্কাউটের বিশেষ জাম্বুরি ইভেন্টে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনকে “ডিজিটাল নাগরিক তৈরিতে উইকিমিডিয়ার অবদান” শীর্ষক আলোচনায় আমন্ত্রণ জানানো হয়। সেখানে একটি “সরাসরি বৈঠক”-এর আয়োজন করা হয়, যার বিষয়বস্তু ছিলো উইকিপিডিয়া সম্পাদনায় স্বেচ্ছাসেবকদের অবদান আলোচনা প্রসঙ্গে।

এছাড়া সারা বছরব্যাপী উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন বিভিন্ন সংস্থার সাথে যৌথভাবে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। কোভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারীর এই দুঃসময়ে যা ছিলো অনেক কঠিন এবং একই সাথে সফল। উইকিমিডিয়া শিক্ষা প্রকল্পের মাধ্যমে সৃষ্ট ডিজিটাল শিক্ষা উপকরণগুলো পরবর্তী বছরগুলোতেও ব্যবহার করা হবে, এতে অনলাইন শিক্ষা ব্যবস্থায় একটা স্থায়ী পরিবর্তন লক্ষ করা যাবে।

Translate »
Share This