মানবাধিকার সনদের বর্ষপূর্তী উপলক্ষ্যে আয়োজিত হয় এ এডিটাথন (ছবি: নাউন প্রকল্প, সিসি-বাই-এসএ ১.০)

সারা বিশ্বে তথ্যের প্রয়োজনীয়তা বাড়ছে দ্রুতগতিতে, সেইসাথে বাড়ছে ভুল তথ্য, পক্ষপাতদুষ্ট তথ্য এবং বাক্‌স্বাধীনতা, ব্যক্তির মুক্তচিন্তার উপর হস্তক্ষেপ। মানবাধিকার দৈনন্দিন জীবনের সাথে ওতপ্রোতভাবে যুক্ত। আর তাই অনলাইনের বৃহত্তম বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ায় মানবাধিকার বিষয়ক তথ্যাবলীর অভাব দূর করতে আয়োজিত হল মানবাধিকারের পক্ষে উইকি (#WikiForHumanRight) এডিটাথন। ১৯৪৮ খ্রিষ্টাব্দের ১০ ডিসেম্বর মানবাধিকার সনদ স্বাক্ষরিত হয়। মানবাধিকের পক্ষে বিশেষ এ দিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পাশাপাশি বাংলা উইকিপিডিয়াতেও আয়োজিত হয়েছে এডিটাথন। মানবাধিকার ও এর উল্লেখযোগ্য কর্মী সম্বন্ধীয় নিবন্ধের সংখ্যা ও গুণমান বৃদ্ধি করাই হল উইকিপিডিয়ায় এই এডিটাথনের মূল উদ্দেশ্য ছিল। এ প্রসঙ্গে ফাউন্ডেশনের সিইও এবং নির্বাহী পরিচালক ক্যাথেরিন মা’র বলেন, “উইকিমিডিয়ায় আমরা জানি জ্ঞানের মুক্ত প্রবেশ মৌলিক মানবাধিকার। যে কেউ, যেকোনো স্থানে পরিপার্শ্বিক বিশ্ব সম্পর্কে যেন জানতে পারেন। যখন আমরা জ্ঞানের প্রতি আরো সঠিকভাবে এগোতে পারব, আমাদের সমাজ আরো বেশি তথ্যবহুল এবং সমতাপূর্ণ হবে।”

এডিটাথনে চিন্তার স্বাধীনতা, ব্যক্তি স্বাধীনতা প্রভৃতি মানবাধিকারবিষয়ক নানাবিধ নিবন্ধ তৈরি এবং সম্প্রসারিত হয়।

Translate »
Share This