উইকিবল। ছবি: এভারলং/সিসি-বাই-এসএ ৩.০

জনপ্রিয় অনলাইন বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ায় যে-কেউ অবদান রাখতে পারেন, এবং বিশ্বের সকল স্থানের অবদানকারীই এখানে অবদান রেখে চলেছেন। তাই বিতর্কিত কিছু বিষয় নিয়ে বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে অনলাইন যুদ্ধ হওয়াটা নতুন কিছু নয়। সেনকাকু দ্বীপ নিয়ে লেখা ইংরেজি নিবন্ধে এ সম্পর্কে ‘পূর্ব এশীয়ার দ্বীপপুঞ্জ’ লেখা থাকলেও এই বছরের শুরুতে একে মান্দারিন ভাষার উইকিপিডিয়ায় ‘চীনের অভ্যন্তরীণ অঞ্চল’ হিসেবে দাবি করা হয়।

১৯৮৯ খ্রিষ্টাব্দের ‘তিয়েনআনমেন স্কয়ারে বিক্ষোভ’ নিবন্ধকে মান্দারিন উইকিপিডিয়ায় ‘৪ জুনের সংঘটিত ঘটনা’ থেকে পরিবর্তন করে ‘বিপ্লব-বিরোধী দাঙ্গা নিরসন’ হিসেবে লেখা হয়। দালাই লামা সম্পর্কিত ইংরেজি নিবন্ধে তাঁকে তিব্বতীয় শরনার্থী লেখা হলেও মান্দারিনে লেখা চীনা নির্বাসিত ব্যক্তি। উইকিমিডিয়া তাইওয়ানের বোর্ড মেম্বার জেমি লিন যুক্তরাজ্যভিত্তিক গণমাধ্যম সংস্থাকে বলেন, “এই ব্যাপারগুলো চীনা সরকার নিয়ন্ত্রণ করে। এটা খুবই শঙ্কার বিষয়।”

আরও পড়ুন: চীনে আবারও বন্ধ হলো উইকিপিডিয়া

গুগল বা সিরির মত ডিজিটাল সহকারীরা উইকিপিডিয়া থেকেই তথ্য নিয়ে থাকে। তাই এ বছরের সেপ্টেম্বরের শুরুতে যদি জিজ্ঞেস করা হত, তাইওয়ান কী? তাহলে উত্তর পাওয়া যেত, ‘গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের একটি প্রদেশ’, কারণ কেউ একজন ‘পূর্ব এশিয়ার একটি রাষ্ট্র’ কথাটিকে মুছে নতুনভাবে এই তথ্য যুক্ত করে।

চীনের কমিউনিস্ট পার্টি পরিচালিত চায়না ইন্টারন্যাশনাল পাবলিশিং গ্রুপের পক্ষ থেকে জি ডিং বিবিসিকে জানান, ‘উইকিপিডিয়ায় চীনের গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক বিষয়গত নিবন্ধে সামঞ্জস্যতার এবং ক্রমের অভাব রয়েছে। বিবিসির সাথে আলাপকালে চাইনিজ ইউনিভার্সিটি অব হংকং-এর সহকারী অধ্যাপক লোকমান সুই বলেন, “বিগত কয়েক বছর ধরে চীনের গল্প বাইরের জগতকে সুষ্ঠভাবে জানানোর ক্ষেত্রে ঝামেলা তৈরি হয়েছে। ধারণা করা হয় বাইরের অনেক মানুষ চীন সম্পর্কে যা জানে তা আসলে সঠিক নয়।”

আরও পড়ুন: এবার উইকিপিডিয়া স্তব্ধ হল ভেনেজুয়েলায়

কিছুক্ষেত্রে দেখা গেছে বিতর্কিত বিষয় নিয়ে একেক পক্ষ একেকরকম দাবি তোলে এবং সেইরূপ তথ্য উইকিপিডিয়ায় উপস্থাপনের চেষ্টা করে। যেমন হংকং-এ চলমান বিক্ষোভকে কি চীনের ‘বিরুদ্ধে’ বলা চলে? এই সম্প্রদায়কে কি ‘হ্যান চীনাদের একটি দল’ এভাবে বলা ঠিক হবে? এমন প্রশ্ন তোলেন সংশ্লিষ্টরা। এমনকি কিছু ক্ষেত্রে এই আঘাত উইকিপিডিয়ার বিষয়বস্তুর উপরেই শুধু নয়, বরং উইকিপিডিয়ানদের (উইকিপিডিয়ার স্বেচ্ছাসেবক) উপরেও চলে আসে।

লিন বলেন, “আমাদের কেউ কেউ বলেছে তাদের ব্যক্তিগত তথ্যাবলী বাইরে ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে, কারণ তারা ভিন্ন মতের অনুসারী।” ইউনিভার্সিটি অব নিউ সাউথ ওয়েলসের ডিজিটাল সংস্কৃতি বিভাগের জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক হেথার ফোর্ড, যিনি উইকিপিডিয়ার রাজনৈতিক দিক নিয়ে গবেষণা করে থাকেন, বিবিসিকে জানান, তিনি এই ঘটনায় খুব একটা বিস্মিত নন। “উইকিপিডিয়া তথ্যের ব্যাপারে সবচেয়ে অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত মাধ্যম, নিঃসন্দেহে মানুষ একে হাতিয়ার বানানোর চেষ্টা করবে।”

আরও পড়ুন: তুরস্কে এখনও স্তব্ধ উইকিপিডিয়া

যদিও এরকম যেকোনো প্রকার ধ্বংসপ্রবণতামূলক সম্পাদনা সরিয়ে উইকিপিডিয়াকে বিশ্বাসযোগ্য অবস্থানে রাখতে উইকিপিডিয়ানেরা নিয়মিত কাজ করে চলে, তবুও সাময়িকভাবে এ সম্পাদনা যুদ্ধ প্রায়শই বিভিন্ন ভাষার উইকিপিডিয়ায় বিদ্যমান বলে জানা যায়। অতীতে এ ধরণের সম্পাদনার কারণে তুরস্কে, ভেনেজুয়েলায় এবং চীনে অনলাইনের বৃহত্তম এ বিশ্বকোষ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

Translate »
Share This