গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকত। ছবি: সৈয়দ সাজিদুল ইসলাম যা সিসি-বাই-এসএ ৪.০ লাইসেন্সের আওতায় প্রকাশিত।

উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন একটি টেকসই বিশ্ব নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে কাজ করে যাচ্ছে। সম্প্রতি তারা একটি টেকসই মূল্যায়ন প্রকাশ করেছে, যা ফাউন্ডেশনের কাজের ফলে উৎপন্ন মোট কার্বন নিঃসরণের উৎসসমূহ তালিকাভুক্ত করে এবং এই নিঃসরণ হ্রাস করতে তারা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে। দুই বছরেরও বেশি সময়ের জন্য করা এই পরিকল্পনাটি তাদের পরিবেশগত প্রভাব সম্পর্কে আরও সচেতন করে তুলবে এবং টেকসই পরিবেশ গড়ে তুলতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ করবে। সম্পূর্ণ নথিটি উইকিমিডিয়া কমন্সে পাওয়া যাবে।

গত বছরের শেষের দিকে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন পরিবেশ সম্পর্কিত তাদের বর্তমান পদ্ধতিগুলো গবেষণা, নূন্যতম ভিত্তিরেখা স্থাপনে সহায়তা এবং সম্ভাব্য রোডম্যাপকে এগিয়ে নিয়ে স্ট্র্যাটেজিক সাসটেইন্যাবিলিটি গ্রুপকে সাথে নিয়ে গবেষণা করে।

এই গবেষণায় উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের ইন্টারনেট সেবা, অফিস, কর্মী, ভ্রমণ এবং বড় ঘটনাবলীসহ সমস্ত সরাসরি ব্যয়ের পরিবেশগত প্রভাব অন্তর্ভুক্ত ছিল। এতে পরোক্ষ ব্যয়ের প্রভাব যেমন অনুদান তহবিলের কার্যকলাপ, নগদ বিনিয়োগ, বা অর্থ বিনিয়োগের মতো কার্যকলাপ অন্তর্ভুক্ত ছিল না।

উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের এক প্রতিবেদনে অনুযায়ী ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে ফাউন্ডেশন কার্যক্রমের ফলে ২.১ কিলো টন CO₂ বা সমতুল্য ক্ষতিকর গ্যাস নির্গত হয়েছিল। যার ৫৬% বিদ্যুতের ব্যবহার (ডেটা সেন্টার এবং অন্যান্য কার্যক্রম), ২৬% বিশ্বব্যাপী বিমান ভ্রমণ, ১১% হোটেল থাকা, এবং ৭% অন্যান্য কারণে হয়েছিল। মার্কিন প্রভাব প্রতিরোধ সংস্থার গ্রিনহাউস গ্যাস সমতুল্য ক্যালকুলেটর অনুসারে এই প্রভাবটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ২৫১টি বাড়িতে এক বছরের জন্য শক্তি ব্যবহারের ফলে যে CO₂ গ্যাস নির্গমন ঘটে তার সমতুল্য।

CO₂ বা সমতুল্য ক্ষতিকর গ্যাসের প্রভাব কমাতে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন থেকে গৃহীত পদক্ষেপসমূহ:

  • উইকিমিডিয়ার সার্ভারগুলো যথাসম্ভব টেকসই শক্তির দিয়ে চালিত হয়। অর্থাৎ উইকিপিডিয়া এবং উইকিমিডিয়া প্রকল্পসমূহের প্রায় এক হাজার ওয়েবসাইট এই শক্তি দিয়ে পরিচালিত হয়।
  • তাঁরা ভবন ব্যবস্থাপনায় সবুজ ভবনের বৈশিষ্ট্যগুলো অন্তর্ভুক্ত করেছে।
  • সুদূরপ্রসারী দূর-কর্মশক্তি নীতি অনুশীলনের ফলে সান ফ্রান্সিস্কোতে অবস্থানরত কর্মীদের চেয়ে দূরবর্তী কর্মীরা প্রায় অর্ধেক কার্বন নিঃসরণ করে।
  • তাঁদের কাগজহীন দপ্তর নীতি এবং ক্লাউডভিত্তিক কর্মপ্রবাহের ব্যাপক ব্যবহার এর প্রভাব হ্রাস করেছে।
    সর্বোপরি সংস্থাটির সবাই পরম উদ্যমের সাথে টেকসই প্রভাব এবং সুযোগ অন্বেষণ করছে।

এসবের বাইরে ফাউন্ডেশন ব্যক্তি পর্যায়ের তুলনায় ভার্চুয়াল সভা এবং ইভেন্টগুলো কীভাবে আরও বাড়ানো যায় সে চেষ্টা করছে। এছাড়া ডেটা সেন্টারে সামগ্রিক কার্বনের প্রভাব হ্রাস করার বিভিন্ন উপায় অন্বেষণ করছে।

বর্তমানে ফাউন্ডেশন একটি স্থায়ী টেকসই নীতি, বিবৃতি বা সংজ্ঞা তৈরি করতে চাইছে। যাতে প্রযুক্তিগত অবকাঠামো থেকে শুরু করে বিভিন্ন ক্রিয়াকলাপ একটি নির্দিষ্ট কাঠামোর মধ্যে আনা যায়।

Translate »
Share This