উইকিপিডিয়ার থ্রিডি পাজল গ্লোব লোগো। ছবি: দেনিজ/সিসি-বাই-এসএ ৩.০

বিশ্বের সর্ববৃহৎ জ্ঞানকোষ উইকিপিডিয়ায় নিজের জানা কিছুকে নিয়ে লিখতে চাইতে কে না চায়? কিন্তু চাইলেই তা সবসময় হয়ে ওঠে না। কারণ উইকিপিডিয়ার ওপর আপনার নির্ভরতার পেছনে রয়েছে উইকিপিডিয়ার একদল পেশাদারী মানসিকতাসম্পন্ন ও উৎসাহী স্বেচ্ছাসেবীদল, যারা উইকিপিডিয়ার বিশ্বকোষীয় মান ঠিক রাখার প্রশ্নে আপোষহীন, আর এর পাশাপাশি বিশ্বের এই সর্ববৃহৎ জ্ঞানকোষকে আরও সমৃদ্ধ ও নির্ভরযোগ্য রাখার জন্য বিরতিহীন কাজ করে চলেছেন। তারাই নিশ্চিত করছেন, উইকিপিডিয়ায় প্রতি মুহুর্তে যোগ হওয়া ভুক্তিগুলো একটি মানসম্পন্ন বিশ্বকোষে থাকার মতো উল্লেখযোগ্য (Notability) এবং সেই উল্লেখযোগ্যতা প্রাথমিক ও নিরপেক্ষ তথ্যসূত্র দ্বারা প্রমাণিত।

উইকিপিডিয়ায় থাকার জন্য কোনো ব্যক্তি, সংগঠন, বা প্রসঙ্গ উল্লেখযোগ্য কিনা তা যাচাই করার জন্য উইকিপিডিয়ার সম্পাদকগণ আলোচনা করে একটি মানদণ্ড ঠিক করেছেন যা উল্লেখযোগ্যতার নীতিমালা হিসেবে পরিচিত। এই নীতিমালা অনেক বিস্তৃত এবং নির্দিষ্ট বিষয় (যেমন, ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান) নিয়ে আলাদাভাবে মান ঠিক করার প্রয়াসে আলাদা নীতিমালার পাতাও রয়েছে। কিন্তু অল্প কথায় গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়কে উইকিবার্তার প্রিয় পাঠকদের কাছে উপস্থাপন করাই আমার এই লেখার প্রয়াস।

প্রাথমিকভাবে উইকিপিডিয়ার কোনো নিবন্ধকে প্রথমত উইকিপিডিয়ার তথা একটি বিশ্বকোষের আওতাভুক্ত হওয়ার মতো গুরুত্বপূর্ণ হতে হয় এবং সেই গুরুত্ব অন্ততপক্ষে দ্বিতীয় মাত্রার নিরপেক্ষ তথ্যসূত্র দ্বারা প্রমাণিত হতে হয়। বিষয়টিকে আরেকটু পরিস্কার করতে বলা যায়, কোনো বিষয়ের ওপর প্রকাশিত একটি বই যদি প্রাথমিক সূত্র হিসেবে বিবেচিত হয় এবং সেই বইয়ের ওপর ভিত্তি করে লেখা একটি প্রতিবেদন দ্বিতীয় মাত্রার সূত্র হিসেবে বিবেচিত হবে। অবশ্য এই দ্বিতীয় মাত্রার সূত্রকেও কিন্তু নিরপেক্ষ, গুরুত্বপূর্ণ, নিরর্ভরশীল হতে হয়।

নিরপেক্ষতা এখানে বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ কারণ বিষয়ের সাথে সূত্রের নিরপেক্ষতা না থাকলে সেই সূত্র উইকিপিডিয়ার কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। উদারহণ হিসেবে বলা যায়, আপনার নিবন্ধের বিষয়টি কোনো গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত থাকলে সেই প্রতিষ্ঠানের প্রকাশনায় আপনার বিষয় সম্পর্কে থাকা তথ্যের নিরপক্ষেতা থাকে না। তাই সেই প্রকাশনার সূত্র উইকিপিডিয়ায় ঐ নিবন্ধের উল্লেখযোগ্যতা প্রমাণে ব্যবহার অগ্রহণযোগ্য। ইন্টারনেটের দুনিয়ায় অনেক বিষয়েই ইন্টারনেটে অনেক তথ্যসমৃদ্ধ লিংক পাওয়া যায়।

এক্ষেত্রে কোনো বিষয়ের উল্লেখযোগ্যতা প্রমাণে অনেকে ইন্টারনেট থেকে যাচাই না করেই অনেক লিংক সূত্র হিসেবে দিয়ে দেন। কিন্তু এক্ষেত্রে নিরপেক্ষতা ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ আরও দুটি বিষয় রয়েছে, আপনার সূত্র প্রদানকারী ওয়েবসাইটটিকে কিন্তু নির্ভরশীল হতে হবে, এবং আপনার বিষয়ের গভীরতা নিশ্চিত করতে হবে।

অনেক বিষয়েই ‘কোনো কিছু উল্লেখ করা’ ঘরাণার খবর দিয়ে অনেক বিষয়ই উইকিপিডিয়ায় স্থান পেতে চায়, কিন্তু ঐ খবরগুলোতে সেই বিষয়ের গুরুত্ব সম্পর্কে কোনো আঁচ পাওয়া যায় না, গভীরতাও থাকে না। আর সাধারণত আলোড়ন তোলা সাম্প্রতিক অনেক বিষয় উইকিপিডিয়ার জন্য উল্লেখযোগ্য হয়ও না, কারণ উল্লেখযোগ্যতা স্থায়ী। তাই বিষয়টিকে অবশ্যই স্থায়ীভাবে উল্লেখযোগ্য হওয়ার মতো গুরুত্বপূর্ণ হতে হবে।

অল্প কথায় উইকিপিডিয়ার জন্য উল্লেখযোগ্য হতে হলে একটি বিষয়কে সাধারণভাবে গুরুত্ববহ ও বিশদভাবে উপস্থাপিত হতে হবে, এবং বিষয়টির এই গুরুত্ব (কমপক্ষে) দ্বিতীয় মাত্রার একাধিক নিরপেক্ষ, নির্ভরশীল তথ্যসূত্র দ্বারা প্রমাণিত হতে হবে। এখানে আরেকটি বিষয় জানিয়ে রাখা দরকার যে, উইকিপিডিয়ায় কোনো বিষয় আলাদা নিবন্ধ হিসেবে উল্লেখযোগ্য না হতে পারে, কিন্তু সেটি অন্য কোনো নিবন্ধের অংশ হতে পারে যা ‘একত্রীকরণ’ হিসেবে পরিচিত এবং এবিষয়ে উইকিপিডিয়ার একত্রীকরণ নীতিমালাও রয়েছে। তবে সে বিষয়ে কথা আরেকদিন হবে। আজকের মতো এ পর্যন্তই।

উইকিপিডিয়ার উল্লেখযোগ্যতা নীতির বিস্তারিত পাওয়া যাবে: উইকিপিডিয়া পাতায়

তানভির রহমান, বাংলা উইকিপিডিয়ার একজন নিয়মিত অবদানকারী এবং প্রশাসক হিসেবে ২০১০ সাল থেকে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়ও উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের বোর্ড সদস্য হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন। উইকিপিডিয়ায় তিনি Wikitanvir নামে অবদান রাখেন।

Translate »
Share This